NewSmSBD.ComLogin Sign Up

সাইফুর রহমান সোহাগ ছাত্রলীগের ইতিহাস নিয়ে বই লিখলেন

In পড়াশোনা নিউজ - 2017-01-23 09:35 pm - Views : 146
সাইফুর রহমান সোহাগ ছাত্রলীগের ইতিহাস নিয়ে বই লিখলেন


প্রতিষ্ঠার পর থেকে নানা চড়াই-উৎরাই পেরিয়ে আজকের বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। বাংলাদেশের ইতিহাসে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন আন্দোলনসহ মহান মুক্তিযুদ্ধেও রয়েছে ছাত্রলীগের গর্বিত অংশগ্রহণ। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে তরুণ প্রজন্মের এ সংগঠনটি গড়ে উঠেছে বৃহৎ কলেবরে।

সংগঠনটির ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা ইতিহাস নিয়ে লিখেছেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ। ‘ছাত্রলীগের ইতিহাস, বাংলাদেশের ইতিহাস’ নামে বইটি এবারের বইমেলায় পাওয়া যাবে শব্দশৈলী প্রকাশনীতে।

/> বই সম্পর্কে সাইফুর রহমান সোহাগ বলেন, ‘‘বাংলাদেশের সঙ্গে বেড়ে ওঠা ঐতিহ্যবাহী এ সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানই ছাত্রলীগের ইতিহাসকে বাঙালির ইতিহাস বলে আখ্যায়িত করেছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও ছাত্রলীগের ইতিহাসকে বাংলাদেশের ইতিহাস বলে অভিহিত করেছেন। বাংলাদেশ ও বাঙালি জাতির গৌরব এবং সাফল্যের ইতিহাস জানতে হলে অবধারিতভাবেই জানতে হবে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ইতিহাসও।’’

তিনি আরো বলেন, ‘‘আর শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সঙ্গে তরুণ প্রজন্মকে ছাত্রলীগের গর্বিত ইতিহাস সম্পর্কে অনুপ্রাণিত করতেই এ বই লেখায় হাত দিয়েছি। পড়াশোনার বিকল্প নেই, পড়াশোনাই একজন শিক্ষার্থীর প্রধান কাজ। সেই সঙ্গে শিল্প-সাহিত্য চর্চা ও দেশের ইতিহাস আমাদের জানতে হবে। আপনারা জানেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীও অনেক বই লিখেছেন। এত ব্যস্ততার মাঝেও উনি সময় বের করে লেখালেখি করেন, এটা আমাকে উদ্বুদ্ধ করেছে।’’

বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে ছোটবেলা থেকেই ছাত্রলীগের কর্মী হয়েছিলেন সাইফুর রহমান সোহাগ। তার কথায়, ‘‘শুরু থেকেই আমি জানার চেষ্টা করেছি সংগঠনটির জন্ম, পথচলা, বিভিন্ন আন্দোলন-সংগ্রামে এ সংগঠনের নেতাকর্মীদের অবদান সম্পর্কে। নিয়মিত পড়াশোনা ও রাজনীতির পাশাপাশি প্রাণের সংগঠন ছাত্রলীগের অতীত ইতিহাস সম্পর্কে জানার চেষ্টা করেছি। আমার খুব ইচ্ছে ছিল এ সংগঠন সম্পর্কে আমার অর্জিত জ্ঞানটুকু একটি বই আকারে ছাত্রলীগের বর্তমান ও ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কাছে তুলে ধরতে।’’

বইটি লিখতে বিস্তর পড়াশোনাও করেছেন সোহাগ। বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী থেকে শুরু করে বিভিন্নসময় প্রকাশিত বিভিন্ন লেখা নিয়ে করেছেন চুলচেরা বিশ্লেষণ।

তিনি বলেন, ‘‘৬৯ বছরের পথপরিক্রমায় ঐতিহাসিক এই সংগঠনের ইতিহাস নিয়ে অনেক কাটাছেঁড়া হয়েছে, অনেক সময় বিভ্রান্তিও ছড়িয়েছে। সেইসব ভ্রান্তি ছেঁটে ইতিহাসের প্রকৃত আখ্যান প্রাণবন্ত উপস্থাপনায় তুলে আনার প্রয়াস- ‘ছাত্রলীগের ইতিহাস, বাংলাদেশের ইতিহাস’।

মহান মুক্তিযুদ্ধে ছাত্রলীগের ১৭ হাজার নেতাকর্মী জীবন দিয়েছেন। ৫২’র ভাষা আন্দোলনে শহীদ হয়েছেন অনেক নেতাকর্মী। ছাত্রলীগের অবদান সবার জানা উচিৎ বলে মনে করেন ছাত্রলীগ সভাপতি। সংগঠনটির এই সোনালি অর্জনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও ছাত্রাবস্থায় এ সংগঠনের কর্মী ছিলেন। ছাত্রলীগ কর্মী হিসেবে ৬৯ এর গণঅভ্যুত্থানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সক্রিয় অবদানসহ সংগঠনটির নানা ঘটনাবলী ও ইতিহাস নিয়ে বইটির প্রথম খণ্ড প্রকাশ হবে এবার। প্রথম খণ্ডে প্রতিষ্ঠার পর ১৯৪৮ সাল থেকে ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধ পর্যন্ত ছাত্রলীগের উত্থান পতনের নানা ঘটনা ঠাঁই পেয়েছে বইটিতে। ১৯৭১ থেকে বর্তমান পর্যন্ত ইতিহাস নিয়ে এরপর দ্বিতীয় খণ্ড প্রকাশ করবেন তিনি।

এবার অমর একুশে বইমেলায় প্রকাশিতব্য বইটি সাইফুর রহমান সোহাগের লেখা প্রথম বই। জাতীয় পতাকার রং লাল-সবুজের ছোঁয়া রেখে করা প্রচ্ছদে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আন্দোলন-সংগ্রাম ও ৬৯ এর গণঅভ্যূত্থানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজপথে আন্দোলনরত মিছিলের একটি ছবিও ব্যবহার করা হয়েছে।

সোহাগ বলেন, ‘‘আমার ক্ষুদ্র প্রয়াস বঙ্গবন্ধুর নিজ হাতে গড়া সংগঠনটির ইতিহাস যারা পড়বেন, তারা জানতে পারবেন ছাত্রলীগ কীভাবে জন্মের পর থেকে আজ পর্যন্ত সকল আন্দোলন-সংগ্রামে সফল হয়েছেন। বইটি পড়লে আমার বিশ্বাস সবাইকে ভালো লাগবে। আর সবার ভালো লাগাই হবে আমার চলার পথে অনুপ্রেরণা।’’

Googleplus Pint
Admin
Posts 11
Post Views 4,548